Breaking news

পদ্মা সেতুর নির্মাণ ব্যয় ও পদ্মা সেতু তৈরি করতে কত টাকা লেগেছে জানুন এখানে

পদ্মা সেতু তৈরির খরচ কত। পদ্মা সেতু তৈরিতে কত টাকা লেগেছে। পদ্মা সেতু তৈরির মোট টাকা কত। পদ্মা সেতুর বাজেট কত ছিলো। পদ্মা সেতু তৈরির নির্মাণ ব্যায় ।

আমাদের অনেকেরই জানা নাই যে আমাদের বহুল কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু নির্মাণ ব্যয় কত ??? এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আমরা পদ্মা সেতুর ব্যয় সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা প্রদান করব। আশা করি পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে দেখলে  পদ্মা সেতুর ব্যয় সম্পর্কে পরিপূর্ণভাবে ধারণা পাওয়া যাবে।

পদ্মা সেতুর নির্মাণ ব্যায় কত?

বিশ্বের গভীরতম পাইলের সেতু বাংলাদেশের পদ্মা নদীর উপর নির্মিত বহুমুখী সড়ক ও রেল সেতুর নাম হল পদ্মা সেতু। এই সেতুর মাধ্যমে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং এর সাথে শরীয়তপুর ও মাদারীপুর জেলা সংযুক্ত হবে। দুই স্তরবিশিষ্ট এ সেতুটি স্টিল ও কংক্রিট দ্বারা নির্মিত। উপরের স্তরে থাকবে চার লেনের সড়ক ও নিচের স্তরে থাকবে রেলপথ।
গভীরতম এই পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য ৬.১৫ মিটার বা ২০.২০০ ফুট। প্রস্থ ১৮.১০ মিটার।

পদ্মা সেতু তৈরিতে কত টাকা খরচ হয়েছে?

৭ ডিসেম্বর ২০১৪ সালে  পদ্মা নদীর উপর এই সেতু নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব সম্পদ থেকে অর্থ নেয়ার মাধ্যমে এ পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হচ্ছে। চীন সরকারের ঋণের টাকায় পদ্মা সেতুর রেল পথের ১৬৯ কিলোমিটার নির্মাণ হচ্ছে। দ্বিতল বিশিষ্ট এ পদ্মা সেতুর পিলার সংখ্যা ৪২ টি ও স্প্যান সংখ্যা ৪১ টি। পদ্মা সেতুর শেষ স্প্যান বসানো হয় ১০ ডিসেম্বর ২০২০ সালে। পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজে মোট জনবল ছিল প্রায় ৪০০০।
পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য অধিগ্রহণকৃত মোট জমির পরিমাণ ৯১৮ হেক্টর। সেতু বিভাগ আরও জানায়, মূল ডিপিপি’তে ১ হাজার ৫৩০ হেক্টর ভূমি অধিগ্রহণের জন্য ব্যয় প্রাক্কলত ছিলো ১ হাজার ২৯৯ কোটি টাকা। কিন্তু এখন মোট ভূমি অধিগ্রহণ করতে হবে ২ হাজার ৬৯৮ হেক্টর। অতিরিক্ত জমি বাবদ মোট ব্যয় প্রয়োজন ২ হাজার ৬৯৯ কোটি টাকা। পদ্মাসেতু প্রকল্পে ভূমিসহ অধিগ্রহণ বাবদ আরও এক হাজার ৪০০ কোটি টাকা প্রয়োজন।
ভূমি অধিগ্রহণের প্রভাবে নতুনভাবে পদ্মাসেতু প্রকল্পের মোট ব্যয় বেড়েছে বলে জানায় সেতু বিভাগ।

সেতু বিভাগ সূত্র জানায়, ভূমি অধিগ্রহণ খাতের জমির পরিমাণ ও ব্যয় পরিবর্তনের কারণে অনুমোদিত ডিপিপি থেকে পদ্মাসেতু প্রকল্পের মোট ব্যয় ৪ দশমিক ৮৬ শতাংশ বেড়েছে।

পদ্মা সেতুর বাজেট কত

কাঙ্খিত এই পদ্মা সেতুর বাজেট পাস হয় ২০০৭ সালে। এই বাজেটে পদ্মা সেতুর ব্যয় ধরা হয় ১০ হাজার  ১৬২ কোটি টাকা । পরবর্তীতে পদ্মা সেতুর নকশা পরিবর্তন ও দৈর্ঘ্য বৃদ্ধির কারণে ২০১১ সালে বাজেট সংশোধন করে করা হয় ২০ হাজার ৫০৭ কোটি টাকা। পদ্মা সেতুর নকশা পরিবর্তনের ফলে ২০১৬ সালে বাজেট আরো বৃদ্ধি  করা হয় ৮ হাজার  ২৮৬ কোটি টাকা। সর্বশেষ পদ্মা সেতুর বাজেট আরো বৃদ্ধি করা হয় ১৪০০ কোটি টাকা।
পদ্মা সেতুর মোট ব্যয় ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা। এরমধ্যে নদীশাসন ব্যয় ৮ হাজার ৭০৭ কোটি ৮১ লাখ টাকা। ২০১৮ সালে পদ্মা সেতু প্রকল্পটি সংশোধন না করে ব্যয় বাড়িয়ে করা হয় ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা। চলতি ২০২০ সালের নভেম্বর পর্যন্ত মূল সেতুর অগ্রগতি ৯১ ভাগ, নদী শাসন ৭৬ আর সার্বিক অগ্রগতি ৮২ দশমিক ৫ শতাংশ।

তবে জানা গেছে যে, গত ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত পদ্মা সেতুর ব্যয় হয়েছে ২৪ হাজার ৫৪৭ কোটি ৮১ লাখ টাকা। পুরো পদ্মা সেতু প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি হয়েছে ৮৪ দশমিক ৫০ শতাংশ। তবে মূল পদ্মা সেতুর কাজ হয়েছে ৯২ দশমিক ৫০ শতাংশ। ২০২২ সালের জুন মাসে যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া যাবে বলে চলতি বছরের বাজেট অধিবেশনের বক্তৃতায় আশাবাদ জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button