লোকাল এসইও কি? কিভাবে লোকাল এসইও শিখবেন?

লোকাল এসইও কি? বর্তমানে লোকাল এসইও কেন গুরুত্বপূর্ণ এবং কিভাবে লোকাল এসইও শিখবেন?

সার্চ ইঞ্জিনে রেজাল্ট আসার একমাত্র উপায় হচ্ছে এসইও (SEO)। বর্তমান যুগে সার্চ ইঞ্জিন সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে যাচ্ছে সঠিক ও নিখুঁত রেজাল্ট প্রদানের জন্য। একটি ওয়েবসাইট র‌্যাংক করানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের এসইও রয়েছে। গুগল “লোকাল সার্চ সিস্টেম” চালু করেছে বিশেষকরে যারা লোকাল বিজনেস করে তাদের জন্য। যার ফলে এখন কোন নির্দিষ্ট এলাকার কোন একটি ব্যবসা অনলাইনে প্রমোট করতে চাইলে লোকাল এসইও এর প্রয়োজন হবে। যেমন ধরুন, আপনার যদি কোন ছোট শহরে রেস্টুরেন্ট, সুপার শপ, আবাসিক হোটেল বা ছোট খাটো ব্যবসা থাকে তাহলে লোকাল এসইও করে গুগল এর মাধ্যমে হোটেল বা রেস্টুরেন্ট সম্পর্কে ক্রেতাদের সহজে ধারনা দিতে পারবেন।  

লোকাল এসইও কি?

লোকাল এসইও এর পূর্ণরূপ হল লোকাল সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন। লোকাল এসইও হল কোন একটি নির্দিষ্ট জায়গা বা কোন একটি নির্দিষ্ট জিওগ্রাফিক লোকেশনকে কেন্দ্র করে আপনার বিজনেস কে ঐ লোকেশন এর জন্য সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর জন্য গুগল তথা অন্য সার্চইঞ্জিন এর জন্য অপটিমাইজেশন করা। অর্থাৎ, আপনার নির্দিষ্ট এলাকা জুড়ে অডিয়েন্স গুলো টার্গেট করে আপনি আপনার ব্যবসায়িক বৃদ্ধির জন্য যে এসইও করা হয় সেটাই মূলত লোকাল এসইও। 

একটি উদাহরণ দিয়ে বোঝানো যাক। অনেকেরই এমন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা লোকাল বিজনেস যেমন দোকান, সার্ভিস সেন্টার থেকে থাকে যেখানে তারা অনলাইনের পাশাপাশি অফলাইনে সেবা প্রদান করে থাকেন। লোকাল এসইও এই কাজটিকেই আরও সহজ করে তোলে যাতে আপনার গ্রাহকরা সহজেই আপনাকে খুঁজে পায়। এ ধরনের এসইও এর জন্য আপনার ঠিকানা শহরের নাম এবং বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে আপনাকে এমন ভাবে সার্চ ইঞ্জিনে অপটিমাইজ করতে হবে যাতে সবাই আপনাকে খুব সহজে এবং অনলাইনে এবং অফলাইনে ২ ভাবেই খুঁজে পাওয়া যায়

লোকাল এসইও ২ ভাগে ভাগ করা যায়-

  1. আইপি নির্ভর এসইওঃ সার্চ ইঞ্জিনে কোন প্রোডাক্ট বা কোন সার্ভিসের নাম লিখে সার্চ করবেন তখন সার্চ ইঞ্জিন আপনার আইপি এর উপর নির্ভর করে আপনার সবথেকে কাছের তথ্যটাই আপনাকে দেখাবে। এই রেজাল্ট আইপি এর উপর নির্ভর করে দেখানো হয়ে থাকে।
  2.  লোকেশন নির্ভর এসইওঃ আপনি যখন সার্চ ইঞ্জিনে কোন কিছু লিখে সার্চ করবেন কিন্তু কি-ওয়ার্ড এর সাথে একটা নির্দিষ্ট লোকেশন যুক্ত করে দিলে তখন ওই নির্দিষ্ট জায়গার রেজাল্টগুলো আপনাকে দেখাবে, এটাই মূলত লোকেশন নির্ভর সার্চ।

লোকাল এসইও এর সুবিধা কি?

সার্চ ইঞ্জিন র‌্যাঙ্কিং নির্ধারণ করে ব্যবহারকারী এবং অনলাইনে অনুসন্ধানের উপর। এটি স্থানীয় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান  গুলোকে বড় সংস্থাগুলির সাথে প্রতিযোগিতা করার ভালো সুযোগ করে দেয়। গুগল সার্চ ইঞ্জিনের রেজাল্ট পেজগুলোতে (এসইআরপিএস) আরো ভাল দৃশ্যমানতা প্রাপ্তির পাশাপাশি, লোকাল এসইওতে বিনিয়োগ করে ব্যবসায় উন্নতি করার জন্য অনেক সুযোগ তৈরী হয়েছে।  যেমন,

১. সাশ্রয়ী বিপণনঃ অনলাইনে ডিরেক্টরিতে আপনার ব্যবসায়ের তথ্য পরিচালনা করার আপনি সাধারণত গুগল মাই বিজনেস এবং বিভিন্ন অনলাইন মিডিয়ার সাহায্যে বিনামূল্যে ওয়েবসাইটে স্থানীয় ব্যবসায়িক তালিকা তৈরি করতে পারেন যা লোকাল এসইওকে অনলাইন বিজ্ঞাপনের জন্য আরো সাশ্রয়ী বিকল্প হিসাবে পরিণত করে।

২. স্থানীয় গ্রাহক খোঁজাঃ ৭২% গ্রাহক তার কাছাকাছি কোন দোকান বা মার্কেট থেকে কেনাকাটা করে থাকে। সুতরাং যদি স্থানীয় অনুসন্ধানের ফলাফলগুলোতে বা গুগল ম্যাপে গ্রাহক আপনার সন্ধান পেয়ে থাকে তবে আপনার ব্যবসায়ের জন্য গ্রাহক বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

৩. কেনার জন্য প্রস্তুত গ্রাহকদের কাছে পৌঁছানোঃ লোকাল এসইও আপনাকে কোনো পণ্য বা পরিষেবা অনুসন্ধান করার সঠিক মুহুর্তে গ্রাহকের সামনে প্রদর্শন করে এবং তাদের কেনার সম্ভাবনা তৈরি করে।

৪. ট্র্যাফিক সরবরাহ করেঃ  লোকাল এসইও আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিকের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে। আপনার কোনো ওয়েবসাইট না থাকলেও অনলাইন লিডের মাধ্যমে ট্র্যাফিক বৃদ্ধি করে সহায়তা করে। যারা আপনার ব্যবসায়ের প্রস্তাবিত পণ্য বা পরিষেবাগুলো সন্ধান করছেন, তারা আপনাকে ভাল রিভিউ দেওয়ারও সম্ভাবনা রয়েছে। 

লোকাল এসইও এর কাজের পরিধি কেমন?

সহজভাবে বলতে গেলে, আপনার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান যদি অফলাইন বা লোকাল ভাবে সার্ভিস দিয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই সব সময় সার্চ ইঞ্জিনের মাধ্যমে আপনি কাস্টমার বা অডিয়েন্স পাবেন না। আপনার ব্যবসা ফ্রিতে প্রমোট করে সহজে ব্যবসায় সফলতা আনার জন্য আপনাকে অবশ্যই লোকাল এসইও করতে হবে। এ ধরনের এসইওর জন্য আপনার ঠিকানা শহরের নাম এবং বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে অপটিমাইজেশন করা হয়ে থাকে। যাতে সবাই আপনাকে খুব সহজে এবং অনলাইনে এবং অফলাইনে দুইভাবেই খুঁজে পায়। বর্তমানে স্থানীয় ছোট এবং মাঝারি ব্যবসাগুলি সেই অবস্থানের সেরা অনুসন্ধানগুলি করতে কীওয়ার্ডগুলি ব্যবহার করে৷ 

এখানে কিছু পরিধি রয়েছে, যা লোকাল এসইও এর চাহিদা এবং প্রতিযোগিতামূলক ব্যবসার জন্য অপরিহার্য: 

  1. অনলাইন উপস্থিতি: স্থানীয় ব্যবসার বিকাশে সহায়তা করার জন্য Google Analytics, ওয়েবমাস্টার টুল ইত্যাদির মতো অনেক বিনামূল্যের টুল তৈরি করেছে। 
  2. কাস্টমাইজড ফলাফল: সাধারন মানুষ বর্তমান সময়ে ব্যাপক হারে মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহার বাড়ছে। যার ফলে লোকাল সার্চ প্রচুর পরিমানে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে ঐ সময় সে যে এলাকাতে আছে সেই এলাকার আশপাশে কোন কফি শপ ভালো সে তা জেনে নেওয়ার চেষ্টা করবে। এইভাবে, স্থানীয় এসইও বিপণনের একটি বিশাল সুযোগ তৈরি হচ্ছে। 
  3. লিঙ্ক স্থাপন: লোকাল এসইও ব্যাবহার করে  ব্যবসা বা বিপণনের সম্প্রসারন এবং  লিঙ্কগুলি তৈরি এবং আপনার প্রতিষ্ঠান খুঁজে পেতে ব্যবহার করা যেতে পারে। এই লিঙ্কগুলি সামাজিক শেয়ারিংয়ের মাধ্যমে সামাজিক প্ল্যাটফর্মগুলিতে ব্যবসার উপস্থিতি বাড়াতেও সহায়তা করে।
  4. চলমান ডিভাইসগুলি: প্রযুক্তির উন্নতি সাধনের কারনে, লোকেরা ক্রমাগত তাদের মোবাইল ফোনের  মাধ্যমে অনুসন্ধান করছে৷ লোকেরা তাত্ক্ষণিক ফলাফল খুঁজছে এবং এইভাবে, স্থানীয় অনুসন্ধানের মাধ্যমে বিপণন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এই প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে, স্থানীয় ব্যবসাগুলো কেবল তখনই বৃদ্ধি পেতে পারে যদি তারা বড় কোম্পানি এবং তাদের অনলাইন বিপণন কৌশলগুলির সাথে তাল মিলিয়ে চলে।

লোকাল এসইও কারা শিখবেন?

এক বাক্যে বলতে গেলে,  লোকাল এসইও  যে কারো জন্য। অর্থাৎ, একদম বিগিনার লেভেলের কেউ চাইলে অনায়াসেই লোকাল এসইওতে নিজেকে বিগিনার থেকে এডভান্স লেভেলে নিয়ে যেতে পারেন। একটু বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।  

বর্তমান সময়ে প্রায় সবাই ই অফলাইনের চেয়ে অনলাইনেই কেনাকাটা করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন। আবার ইন্টারনেটের এ সহজলভ্যতার কারনে এখন বিশাল বড় এক বাজার তৈরী হয়েছে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে। তাই স্বাভাবিক ভাবেই বিরাট সম্ভাবনাময় ব্যবসার ক্ষেত্র এ ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম। এখন এখানে যে কোনো প্রতিষ্ঠান তাদের পন্যের প্রচার প্রচারনা চালাতে আসবেই। কারন তা না হলে তারা ব্যবসা থেকে ছিটকে পড়বে। এলেই তো হলো না, প্রয়োজন সঠিক উপায়ে সঠিক কাস্টমারের কাছে পৌঁছে যাওয়া।  আর এখানেই প্রয়োজন হবে লোকাল এসইও এর।

আবার কেউ যদি নিজে ব্যবসা করেন তাহলে তারও উচিত এসইও বা লোকাল এসইও সম্পর্কিত জ্ঞান রাখা। তাহলে তিনি নিজের অর্জিত জ্ঞান কাজে লাগিয়ে নিজের ব্যবসাকে আরো অনেকদূর নিয়ে যেতে পারবেন। অর্থাৎ, আগামীদিনের জন্য যিনি নিজেকে একজন ফিট মানুষ রূপে দেখতে চান, তাদের জন্যই এই লোকাল এসইও

কিভাবে লোকাল এসইও শিখবেন?

একটি ওয়েবসাইটের নরমাল এসইও করার পর সেটার ফলাফল পেতে কয়েক মাস থেকে শুরু করে বছর লেগে যেতে পারে। আপনার লোকাল বিজনেসের সফলতা পাওয়ার জন্য লোকাল এসইও এর নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে হবে। নিচের নিয়মগুলো অনুসরণ করে সহজে লোকাল এসইও করতে পারবেন:

১। লোকাল ডোমেইন নির্বাচন: একটি ডোমেইন একটি ওয়েবসাইট এর পরিচয় বহন করে থাকে। যেমন, (www.facebook.com) এই ডোমেইনটি মূলত ফেসবুক নামক একটি প্রতিষ্ঠান এর পরিচয় বহন করছে। ঠিক একইভাবে Local Seo করার জন্য একটি ডোমেইন কিনতে হবে এবং ডোমেইন এক্সটেন্সান এর দিকে একটু নজর দিতে হবে।

২। কীওয়ার্ড রিসার্চ :  আপনার ব্যবসার সাথে সরাসরি বা পরোক্ষভাবে সম্পৃক্ত কিওয়ার্ড ব্যবহার করুন। তাহলে গুগল আপনার ব্যবসার ক্যাটাগরি সম্পর্কে বুঝতে পারবে এবং কাঙ্খিত কাস্টমারের কাছে আপনার ব্যবসা তুলে ধরা সহজ হবে। কারণ উপযুক্ত কিওয়ার্ড ব্যবহার না করলে ক্লায়েন্ট আপনার থেকে সার্ভিস নিতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবে না। তাছাড়া গুগল লোকাল সার্চে আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান র‌্যাংক করাতে পারবে না। Local SEO তে আপনাকে কীওয়ার্ড সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে যদি আপনি মেইন কীওয়ার্ড ব্যতীত অন্যান্য কীওয়ার্ড এর রিলেভেন্ট সার্চ রেজাল্টে র‍্যাংক পেতে চান। 

৩। গুগল মাই বিজনেস এ অন্তর্ভুক্ত করা:  আপনার ব্যবসা অনলাইনে নিয়ে আসার জন্য প্রথমে আপনার ব্যবসাটিকে “Google My Business” এ রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এ ক্ষেত্রে আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নাম ব্যবহার করে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। সেই সাথে আপনার নির্ধারিত এলাকা সিলেক্ট করে আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় তথ্য প্রদান করে রেজিস্ট্রেশন প্রসেস কমপ্লিট করতে হবে।

৪। লোকাল লিস্টিং: কিছু কিছু ওয়েবসাইট আছে শুধুমাত্র দোকানের লিস্ট দেওয়া থাকে সেখানে আপনাকেও আপনার দোকানের ওয়েবসাইট লিস্ট করাতে হবে।

৫। এরিয়া ভিত্তিক কনটেন্ট: আপনি যখন প্রোডাক্টের রিভিউ লিখবেন তখন আপনার লোকাল এরিয়ার অডিয়্যান্সদের টার্গেট করে কনটেন্ট তৈরি করবেন। এতেকরে গুগল সার্চ ইঞ্জিন আপনার পোস্টগুলো সেই লোকাল এরিয়ার মানুষের কাছে পৌছাবে। 

৬। অনলাইন রিভিউ সংগ্রহ: আপনার থেকে কোন পণ্য কেনার আগে বা সার্ভিস নেওয়ার পূর্বে কাস্টমার চাইবে উক্ত জিনিস সম্পর্কে পূর্ববর্তী কাস্টমারদের মতামত বা ফিডব্যাক কেমন ইত্যাদি। আপনি আপনার গুগল বিজনেস প্রোফাইল এ কাস্টমারদের কাছ থেকে রিভিউ অবশ্যই নিবেন। এটি যেমন আপনার সেলস বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে একইভাবে আপনার বিজনেস প্রোফাইল এর র‍্যাংক বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে।

এই কোর্সটি কোথায় করবেন?

এডভান্স লেভেলের ট্রেনিং পাওয়ার জন্য বাংলাদেশে একদম নির্ভরযোগ্য একটি জায়গা Bongiyo.com বঙ্গীয় এমন ভাবে এ কোর্সটি সাজিয়েছে যাতে যে কেউ ঘরে বসেই বঙ্গীয়র ভিডিও গুলো দেখতে দেখতে বিগিনার থেকে এডভান্স লেভেলে যেতে পারেন। যে কোনো স্কিল শেখার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হলো সঠিক দিকনির্দেশনা।  আর সেই সঠিক দিকনির্দেশনা সহ এ কোর্সটি পাওয়া যাবে এখানেই।

Check Also

Dora TV APK

ডোরা টিভি APK ডাউনলোড – Dora TV APK Download Latest Version 2022 Free

Dora TV APK Download নিয়ে আমাদের আজকের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এসেছি আমরা। পৃথিবীতে অনুষ্ঠিত যে কোন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.